1. admin@dainikprothomnews.com : admin :
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ১১:১৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
সাতক্ষীরার তালায় ধানবোঝাই ট্রাক উল্টে দুইজন নিহত সাতক্ষীরায় মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী, দুর্নীতিগস্থ ও সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টিকারীদের প্রশ্রয় দেওয়া হবে না সাতক্ষীরায় চারটি অস্ত্র, ২৯ রাউন্ড গুলি ও তিনটি ম্যাগাজিন জব্দ করেছে র‌্যাব-৬ সাতক্ষীরায় তেলজাতীয় ফসল উৎপাদনে ৫ কৃষক পুরস্কৃত সাতক্ষীরায় কোন আম কবে পাড়া যাবে, জানালো জেলা প্রশাসন সাতক্ষীরার কলারোয়ায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে স্ত্রীর আত্মহত্যা! বাঁশেরবাদা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন সাতক্ষীরার আশাশুনিতে এসএসসি ২০০৮ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের মিলন মেলা অনুষ্ঠিত আজ থেকে ব্যাংক-বীমা-অফিস-আদালত খুলছে ইরানের দাবি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনেছে ক্ষেপণাস্ত্র, লুকাতে চাচ্ছে ইসরায়েল

ত্রিপুরা থেকে বিজেপিকে হটিয়ে বিশ্রামে তৃণমূল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • প্রকাশিত : সোমবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১৮০ জন দেখেছে

ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে ২০২৩ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিশ্রাম নিতে চায় না তৃণমূল কংগ্রেস। আমাদের যদি বিশ্রাম দিতে হয়, বিধানসভা নির্বাচনে ত্রিপুরা থেকে বিজেপিকে সরিয়ে দিলেই তৃণমূল বিশ্রাম নেবে।

সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) রাজ্যে এক বৈঠকের পর সাংবাদিকদের একথা জানান তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ সুস্মিতা দেব।

তিনি বলেছিলেন যে রাজ্য তৃণমূল কংগ্রেসের আহ্বায়ক সুবল ভৌমিক এবং অন্যান্য নেতারা ইতিমধ্যে ভোট-পরবর্তী পর্যালোচনা পরিচালনা করেছেন। এছাড়া সদ্য সমাপ্ত পৌর ও সিটি নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া প্রার্থীদের ডেকে নিজ নিজ এলাকার সাংগঠনিক অবস্থান সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়। বনমালীপুরে সুবল ভৌমিকের বাড়িতে বৈঠকে অন্যরাও উপস্থিত ছিলেন। বৈঠক শেষে দলের তরুণদের শক্তিশালী করতে আরও গুরুত্ব দেওয়ার অনুরোধ জানান এই নেতা। যতদিন দলের তরুণরা শক্তিশালী না হবে ততদিন ফল পাওয়া কঠিন হবে।

তৃণমূলের একমাত্র বিজয়ী প্রার্থী আমবাসাপুর পরিষদের সুমন পালকে স্বাগত জানান সুস্মিতা দেব। যারা মনোনয়ন প্রত্যাহার না করে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

সুস্মিতা দেব আরও বলেন, এক সময় ক্ষমতাসীন দল বিজেপি প্রচার চালালেও তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী খুঁজে পায়নি। এই অবস্থান থেকে, তৃণমূল এ বছর ১২০টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে। ভোটের ফলাফল নিয়ে যদি কেউ ভয় পান, তা হল বিজেপি।

তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ বলেছেন যে ২০১৮ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে আগরতলা পৌর কর্পোরেশনের সাধারণ নির্বাচনে বিজেপি মাত্র ১৪ শতাংশ ভোট পেয়েছিল। এদিকে, প্রতিকূল পরিস্থিতি সত্ত্বেও এ বছর ২০ শতাংশের বেশি ভোট জিতেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

গত কয়েকদিনে ত্রিপুরায় তৃণমূলের কোনো কর্মী আসতে না দেখে অনেকেই ভেবেছিলেন রাজ্য তৃণমূলকে ভুলে গেছে। তৃণমূল কংগ্রেসের কথা উল্লেখ করে সুস্মিতা দেব বলেন, “এটা ভুল নয়। ত্রিপুরা থেকে বিজেপিকে সরিয়ে না দেওয়া পর্যন্ত তৃণমূল কংগ্রেস ত্রিপুরার দিকে নজর রাখবে।”

রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে সুস্মিতা বলেছিলেন যে কয়েকদিন আগেও তারা সাধারণ মানুষের বিভিন্ন বিষয়ে রাজ্যপালের কাছে যেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু শারীরিক অসুস্থতার কারণে তা হয়নি। এবার ৫ জানুয়ারি এমনই ১৫ দফা দাবি নিয়ে রাজ্যপালের দ্বারস্থ হতে চলেছেন তাঁরা।

সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে, প্রাদেশিক স্টিয়ারিং কমিটির আহ্বায়ক সুবল ভৌমিক বলেন, তৃণমূল কংগ্রেস এখনও পর্যন্ত অনুমতির বিষয়টি তুলেছে। এখন থেকে তারা মিছিল-মিটিং বা কোনো সভা-সমাবেশের অনুমতি নেবে না। অনুমতি চেয়ে রাজ্য পুলিশের মহাপরিচালকের কাছে 26টি চিঠিতে কারণ চাওয়া হয়েছে। সুবল ভৌমিক আরও জানান, বিষয়টি নিয়ে তারা আদালতের দ্বারস্থ হবেন।

তৃণমূল কংগ্রেসের আরেক নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন যে তৃণমূল কংগ্রেস প্রতি বছর 1 জানুয়ারি বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে তার প্রতিষ্ঠা দিবস উদযাপন করে। তার মতে, এ বছর ত্রিপুরা রাজ্যে দিবসটি পালিত হবে।

সংবাদ টি শেয়ার করে সহযোগীতা করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2021-2024 দৈনিক প্রথম নিউজ
প্রযুক্তি সহায়তায় রি হোস্ট বিডি