1. admin@dainikprothomnews.com : admin :
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৩:১১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
সাতক্ষীরার তালায় ধানবোঝাই ট্রাক উল্টে দুইজন নিহত সাতক্ষীরায় মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী, দুর্নীতিগস্থ ও সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টিকারীদের প্রশ্রয় দেওয়া হবে না সাতক্ষীরায় চারটি অস্ত্র, ২৯ রাউন্ড গুলি ও তিনটি ম্যাগাজিন জব্দ করেছে র‌্যাব-৬ সাতক্ষীরায় তেলজাতীয় ফসল উৎপাদনে ৫ কৃষক পুরস্কৃত সাতক্ষীরায় কোন আম কবে পাড়া যাবে, জানালো জেলা প্রশাসন সাতক্ষীরার কলারোয়ায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে স্ত্রীর আত্মহত্যা! বাঁশেরবাদা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন সাতক্ষীরার আশাশুনিতে এসএসসি ২০০৮ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের মিলন মেলা অনুষ্ঠিত আজ থেকে ব্যাংক-বীমা-অফিস-আদালত খুলছে ইরানের দাবি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনেছে ক্ষেপণাস্ত্র, লুকাতে চাচ্ছে ইসরায়েল

ঈদের ছুটিতে পানিতে ডোবা রোধে সতর্কতা বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে এনএডিপি

প্রথম নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : বুধবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২২
  • ২১১ জন দেখেছে

আসন্ন ঈদুল ফিতর উদযাপনে বাড়ি ফেরা পরিবারগুলোকে পানিতে ডুবে শিশুদের অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু প্রতিরোধে সর্বদা সতর্কতা ও নজরদারি বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স ফর ড্রাউনিং প্রিভেনশন (এনএডিপি)।

প্রতিষ্ঠানটি জানায়, সাধারণত সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টার মধ্যে অধিকাংশ অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। তাই এ সময়ে নিরবচ্ছিন্ন নজরদারি বাড়াতে হবে।

বুধবার (২৭ এপ্রিল) বেলা ১১টায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এনএডিপি আয়োজিত ‘শিশুদের পানিতে ডুবে মৃত্যু প্রতিরোধে নাগরিকদের মধ্যে সচেতনতা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে এই আহ্বান জানানো হয়।

এতে বলা হয়েছে, মে দিবস ও ঈদুল ফিতর উপলক্ষে শহরের কর্মজীবী মানুষ ছুটি কাটানোর প্রস্তুতি গ্রহণ করছে। আগত এ ঈদের ছুটি কাটাতে শহরের অধিকাংশ মানুষ গ্রামে যাবেন। শহুরে জীবনে অভ্যস্ত অনেক শিশুই সাঁতার জানে না অথচ ছুটির সময়ে গ্রামের বাড়িতে বেড়ানোর একটা অন্যতম আকর্ষণ হলো উন্মুক্ত জলাধারে (পুকুরে বা খালে-নালায়) গোসল করা। এই সময়ে প্রয়োজন শিশুদের অধিকতর পরিচর্যা (সুপারভিশন) করা এবং নিরবচ্ছিন্নভাবে নজরে রাখা।

অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স ফর ড্রাউনিং প্রিভেনশনের আহ্বায়ক সদরুল হাসান মজুমদার। তিনি জানান, পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যুর ঘটনা ঘটে বাড়ির নিকটতম জলাধার, যেমন পুকুর বা খালে যা ঘর থেকে গড়ে প্রায় ৪০ কদম দূরে। এই অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যুর প্রায় ৬০ শতাংশ ঘটে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টার মধ্যে। সে সময় পরিবারের সদস্যরা বিশেষ করে মায়েরা প্রাত্যহিক কাজে ব্যস্ত থাকেন। অর্থাৎ এই সময়টাতে শিশুদের বিশেষ করে অনূর্ধ্ব ৫ বছর বয়সী শিশুদের দেখভাল করার সার্বক্ষণিক কেউ থাকে না।

তিনি বলেন, প্রতিবছর ঈদসহ বিভিন্ন ছুটিতে বিভিন্ন পর্যটন ও বিনোদন কেন্দ্র বিশেষ করে কক্সবাজার ও কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে যায় প্রচুর মানুষ। বিগত সময়ে ভ্রমণে গিয়ে অসংখ্য মৃত্যুর খবর আমরা পেয়েছি। আমরা চাই না এ বছর ঈদ ভ্রমণে পানিতে ডুবে মৃত্যুর ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটুক।

এনএডিপি আহ্বায়ক আরও জানান, বাংলাদেশে পর্যটকদের ভ্রমণ নিরাপদ ও আনন্দময় করার উদ্দেশে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় নিরলসভাবে কাজ যাচ্ছে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য পর্যটন কেন্দ্র যেমন কক্সবাজার, সেন্ট মার্টিন, কুয়াকাটায় পর্যটকদের পানিতে ডুবা প্রতিরোধে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও সহযোগী সংস্থাসমূহের কার্যক্রম সীমিত। আমরা পর্যটকদের পানিতে ডোবা প্রতিরোধে সংশ্লিষ্টদের বিশেষ কার্যক্রম বাস্তবায়নে জোর সুপারিশ করছি।

অনুষ্ঠানে লিঙ্গ বৈষম্য ও নারী বিষয়ক অ্যাক্টিভিস্ট সেলিনা আহমেদ এনা বলেন, সময়ের চেয়ে জীবনের মূল্য অনেক বেশি। তাই উৎসবমুখর পরিবেশে শিশুদের জীবন বাঁচিয়েই ঈদ আনন্দ উদযাপন করতে হবে।

এ সময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) সাবেক অধ্যাপক ও এনএডিপির সেক্রেটারি জেনারেল ডা. মো. আব্দুল জলিল চৌধুরী বলেন, পানিতে ডুবে মৃত্যু প্রতিরোধ যোগ্য। এ জন্য সচেতনতা খুবই জরুরি।

তিনি বলেন, যে পরিবারটিতে একটি মাত্র সন্তান, সেই পরিবারের সন্তানটির যদি পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়, তাহলে পুরো পরিবারটিই ধ্বংস হয়ে যাওয়ার উপক্রম হবে।

বাংলাদেশ স্বাস্থ্য ও ইনজুরি সমীক্ষা ২০১৬ অনুসারে, দেশে প্রতিদিন গড়ে ৫ বছরের কম বয়সী ৩০ জন শিশু পানিতে ডুবে মারা যায়। আর ১৮ বছরের কম বয়সীদের হিসেবে ধরলে প্রায় ৪০ শিশুর মৃত্যু হয়। পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যু প্রতিরোধে ব্যাপক জনসচেতনতার কোনো বিকল্প নেই।

সংবাদ টি শেয়ার করে সহযোগীতা করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2021-2024 দৈনিক প্রথম নিউজ
প্রযুক্তি সহায়তায় রি হোস্ট বিডি