1. admin@dainikprothomnews.com : admin :
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৪:১৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
সাতক্ষীরার তালায় ধানবোঝাই ট্রাক উল্টে দুইজন নিহত সাতক্ষীরায় মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী, দুর্নীতিগস্থ ও সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টিকারীদের প্রশ্রয় দেওয়া হবে না সাতক্ষীরায় চারটি অস্ত্র, ২৯ রাউন্ড গুলি ও তিনটি ম্যাগাজিন জব্দ করেছে র‌্যাব-৬ সাতক্ষীরায় তেলজাতীয় ফসল উৎপাদনে ৫ কৃষক পুরস্কৃত সাতক্ষীরায় কোন আম কবে পাড়া যাবে, জানালো জেলা প্রশাসন সাতক্ষীরার কলারোয়ায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে স্ত্রীর আত্মহত্যা! বাঁশেরবাদা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন সাতক্ষীরার আশাশুনিতে এসএসসি ২০০৮ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের মিলন মেলা অনুষ্ঠিত আজ থেকে ব্যাংক-বীমা-অফিস-আদালত খুলছে ইরানের দাবি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনেছে ক্ষেপণাস্ত্র, লুকাতে চাচ্ছে ইসরায়েল

দরিদ্র হৃদরোগীরা প্রধানমন্ত্রীর সাহায্যে বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখছেন

প্রথম নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৫ অক্টোবর, ২০২১
  • ১৯২ জন দেখেছে

ষাটোদ্ধের দিনমজুর জালাল উদ্দিন একজন হৃদরোগী। কিছুদিন আগে রাজধানীর ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউট হাসপাতালে তার হৃদরোগ ধরা পড়ে। চিকিৎসকরা তাকে বলেছিলেন যে তার হার্টের দ্রুত পেসমেকার প্রতিস্থাপন প্রয়োজন। এটা শুনে জালাল উদ্দিন কান্নায় ভেঙে পড়েন। এত হাজার হাজার টাকা খরচ করে কীভাবে তিনি চিকিৎসা পেতে পারেন এই ভেবে তিনি কান্না থামাতে চান না।

এ সময় হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে জানান যে এই হাসপাতালে তার চিকিৎসা বিনামূল্যে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অসহায় রোগীদের চিকিৎসার জন্য বিপুল পরিমাণ অর্থ দিয়েছেন। এক সপ্তাহ আগে তার হৃদয়ে একটি পেসমেকার বসানো হয়েছিল। বর্তমানে জালাল উদ্দিন সুস্থ আছেন।

দরিদ্র লন্ড্রি দোকানের মা করিমন বিবি। প্রধানমন্ত্রীর সহায়তায় জালাল উদ্দিনের মতো একজন পেসমেকার তার হৃদয়ে বসানো হয়েছে। যদিও এটি একটি গল্পের মতো মনে হচ্ছে, অসহায় হৃদরোগীরা ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউট এবং হাসপাতালে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের সাহায্যে জীবনের নতুন ইজারা পাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ আর্থিক সহায়তায় দরিদ্র ও অসহায় রোগীদের জন্য বিনামূল্যে হার্ট রিং, পেসমেকার এবং ভাল্ব প্রতিস্থাপন কার্যক্রম শেরে বাংলা নগরের ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে শুরু হয়েছে। সোমবার (৪ অক্টোবর) হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীর জামাল উদ্দিন আনুষ্ঠানিকভাবে অনুষ্ঠানটি চালু করেন। হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা হৃদরোগীদের যাচাই -বাছাই করে দরিদ্রদের এই সুবিধা দেওয়া হচ্ছে।

পরবর্তীতে, সোমবার হেলাল উদ্দিন, সাদেকুর, জালাল এবং আহমদ হোসেন নামে চারজন দরিদ্র হৃদরোগীর হার্ট রিং প্রতিস্থাপন করা হয়। এর আগে শনিবার (২ অক্টোবর) পরীক্ষামূলক ভিত্তিতে দুইজন রোগীর অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল।

আলাপকালে সাদেকুর বলেন, সরকারের এই সহযোগিতা দরিদ্র মানুষের জন্য ভালো হবে। আমি প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করি। আমি তার প্রতি কৃতজ্ঞ থাকব। তিনি বলেন, অন্যান্য হাসপাতালে চিকিৎসার খরচ হবে আড়াই লক্ষ থেকে তিন লক্ষ টাকা। কিন্তু এখানে একটি পয়সাও খরচ হয়নি।

করিমন বিবির ছেলে নুর হোসেন বলেন, “আমি আমার মায়ের চিকিৎসার খরচ বহন করতে পারছিলাম না। আমি এক বছরেরও বেশি সময় ধরে মায়ের সঙ্গে হাসপাতালে আসছি। আমি আমার মাকে অনেকবার হাসপাতালে ভর্তি করে ছিলাম। প্রধানমন্ত্রীর সহায়তায় মায়ের শরীরে পেসমেকার বাসানো হয়েছে। অনেক আনন্দিত আমরা।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অসহায় হৃদরোগীদের জন্য বিনামূল্যে হার্ট ভালভ, রিং এবং পেসমেকার কিনতে ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউট এবং হাসপাতালকে আর্থিক অনুদান দিয়েছেন। এই চিকিৎসা সরঞ্জামগুলির জন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল থেকে ৩ কোটি ২৯ লক্ষ টাকা প্রদান করা হয়েছে।

চলতি বছরের ২২ আগস্ট প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব তোফাজ্জল হোসেন মিয়া হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ড. মীর জামাল উদ্দিনের কাছ থেকে অনুদানের চেক গ্রহণ করেন।

ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক মীর জামাল উদ্দিন বলেন, “পেসমেকার, হার্ট রিং এবং ভাল্ব প্রতিস্থাপনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের সাহায্যে, আমরা দরিদ্র রোগীদের জন্য ১৫০ পেসমেকার, ১৫০ হার্ট রিং এবং ১৫০ ভাল্ব কিনতে পারি।”

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া এই বিশেষ অনুদানের সাহায্যে চার রোগীর শরীরে বিনামূল্যে হার্ট রিং প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। তিনি আরও মন্তব্য করেন যে বিনামূল্যে দরিদ্র রোগীদের এই ধরনের চিকিৎসা অব্যাহত থাকবে।

সংবাদ টি শেয়ার করে সহযোগীতা করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2021-2024 দৈনিক প্রথম নিউজ
প্রযুক্তি সহায়তায় রি হোস্ট বিডি