1. admin@dainikprothomnews.com : admin :
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:০৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশের অভিযানে ৫ কেজি গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক সাতক্ষীরায় শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় আন্তজার্তিক মাতৃভাষা ও জাতীয় শহীদ দিবস পালিত সাতক্ষীরা জোন ট্যুরিস্ট পুলিশের আয়োজনে সুন্দরবন দিবস পালন সাতক্ষীরায় ডিবি পুলিশের অভিযানে ৫১৫ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেটসহ আটক ১ সাতক্ষীরায় বিশ্ব ক্যান্সার দিবস ২০২৪ শীর্ষক র‌্যালি ও আলোচনা সভা সাতক্ষীরায় ডিবি পুলিশের বিশেষ অভিযানে ৪০ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক ১ বাংলাদেশ থেকে চিকিৎসক-নার্স নেওয়ার ঘোষণা সৌদির শীতের রাতে সাতকানিয়া-লোহাগাড়ায় হঠাৎ বন্যা! মূল্যবৃদ্ধি ও কালো টাকার বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে সিভিল ডিফেন্স ও ভলান্টিয়ার বাড়ানোর আশ্বাস দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

লিবিয়া ইউরোপে যাওয়ার পথে বাংলাদেশিসহ ৫০০ অভিবাসীকে আটক

Reporter Name
  • প্রকাশিত : সোমবার, ৪ অক্টোবর, ২০২১
  • ৩৬১ জন দেখেছে

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
লিবিয়ার উপকূলরক্ষীরা সমুদ্রপথে ইউরোপের পথে বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ৫০০ অভিবাসীকে আটক করেছে। রোববার (৩ অক্টোবর) গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে বাংলাদেশ, সুদান, সোমালিয়া ও সিরিয়ার নাগরিক ছিলেন। জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাইকমিশনার (ইউএনএইচসিআর) এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সংস্থাটি জানিয়েছে, রোববার অভিবাসীদের বহনকারী নৌকাটি আটক করা হয় এবং এর যাত্রীদের পশ্চিম লিবিয়ার জাভানি শহরের একটি তেল শোধনাগার পয়েন্টে ফেলে দেওয়া হয়। তবে আটককৃত অভিবাসীদের মধ্যে নাগরিকদের সংখ্যা প্রকাশ করা হয়নি।

এশিয়া ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ থেকে লিবিয়া হয়ে ইউরোপের পথে ধরা পড়ার এটি সর্বশেষ ঘটনা। মাত্র একদিন আগে, শনিবার (২ অক্টোবর), লিবিয়ার কোস্টগার্ড ইউরোপে যাওয়ার পথে ৯০ অভিবাসীদের আটক করে। তাদের মধ্যে আটজন মহিলা এবং তিনটি শিশু ছিল। তাদের ত্রিপোলিতে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

ইউএনএইচসিআর জানিয়েছে, নৌকা থেকে দুজন অভিবাসীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে, যাদের মধ্যে অন্তত ৪০ জন সমুদ্রে নিখোঁজ রয়েছে।

ঘটনার আগের দিন (১ অক্টোবর) লিবিয়ার সরকার ইউরোপে আশ্রয়প্রার্থী, নারী ও শিশুসহ গর্গেশ শহর থেকে প্রায় চার হাজার অভিবাসীকে আটক করে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এই অভিযানের লক্ষ্য ছিল অবৈধ অভিবাসন ও মাদক পাচার বন্ধ করা। তবে কোনো পাচারকারী বা মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার হয়নি।

লিবিয়ার সমুদ্রে ধরা পড়া অভিবাসীদের প্রায়ই কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে হিউম্যান রাইটস ওয়াচের মতো আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলি ভয়াবহ নির্যাতনের প্রমাণ পেয়েছে।

দরিদ্র আফ্রিকা, যুদ্ধবিধ্বস্ত মধ্যপ্রাচ্য এবং বাংলাদেশ থেকে অবৈধভাবে অনেক ইউরোপীয়দের জন্য লিবিয়া প্রধান রুট হয়ে উঠেছে। ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন (আইওএম) অনুসারে, চলতি বছরের প্রথম নয় মাসে কমপক্ষে ৪৪ হাজার মানুষ ভূমধ্যসাগর অতিক্রম করে লিবিয়া এবং তিউনিসিয়া হয়ে ইউরোপে প্রবেশ করেছে।

লিবিয়ার উপকূলরক্ষী আরো ২৫,০০০ অভিবাসীকে তাদের পথে আটক করে। একই সময়ে, অনুমান করা হয় যে ১১,০০০ এরও বেশি অভিবাসী ডুবে গেছে।

সূত্র: আল জাজিরা

সংবাদ টি শেয়ার করে সহযোগীতা করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2021-2024 দৈনিক প্রথম নিউজ
প্রযুক্তি সহায়তায় রি হোস্ট বিডি