1. admin@dainikprothomnews.com : admin :
শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৭:১৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
সাতক্ষীরায় চায়ের দোকানে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে অর্ধ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশের অভিযানে ৫ কেজি গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক সাতক্ষীরায় শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় আন্তজার্তিক মাতৃভাষা ও জাতীয় শহীদ দিবস পালিত সাতক্ষীরা জোন ট্যুরিস্ট পুলিশের আয়োজনে সুন্দরবন দিবস পালন সাতক্ষীরায় ডিবি পুলিশের অভিযানে ৫১৫ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেটসহ আটক ১ সাতক্ষীরায় বিশ্ব ক্যান্সার দিবস ২০২৪ শীর্ষক র‌্যালি ও আলোচনা সভা সাতক্ষীরায় ডিবি পুলিশের বিশেষ অভিযানে ৪০ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক ১ বাংলাদেশ থেকে চিকিৎসক-নার্স নেওয়ার ঘোষণা সৌদির শীতের রাতে সাতকানিয়া-লোহাগাড়ায় হঠাৎ বন্যা! মূল্যবৃদ্ধি ও কালো টাকার বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে

লতিরাজ কচু সহজেই চাষ করা যায়

প্রথম নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১৭১ জন দেখেছে

লতিরাজ কচু আমাদের দেশে খুবই জনপ্রিয় একটি সবজি। দেশের চাহিদা মিটিয়ে বর্তমানে লতি বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে। কচু লতি মূলত পানির কচুই। লতিরাজ কচু পুষ্টিগুণে ভরপুর। উৎপাদনের দিক থেকে মুখিকচুর পরেই রয়েছে কচু লতি।

বাজারে লতি ৭০-৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়। লতিরাজ কচু চাষ করে সহজেই লাভবান হতে পারেন। আসুন জেনে নেই লতিরাজ কচু চাষ পদ্ধতি।

কচু লতি উষ্ণ আবহাওয়ায় ভালো জন্মে। কচু লতি চাষের জমি মাঝারি নিচু হতে হবে যেখানে বৃষ্টির পানি জমে। কম আলো বা ছায়ায়ও লতি কচু ভালো জন্মাতে পারে। কড়া রোদে ভালো ফলন হয়। প্রায় সব ধরনের মাটিতেই কচু লতি চাষ করা যায় তবে পলি দোআঁশ ও বেলে দোআঁশ মাটিতে কচু লতি চাষ করা ভালো।

আমাদের দেশে কচু লতির বেশ কিছু জাত রয়েছে। এই প্রজাতিগুলি ছোট, ছোট পাতা, সরু এবং দীর্ঘ ডালপালা উত্পাদন করে। উন্নত জাতের লোবগুলি লম্বা এবং পুরু এবং গট্টুরাল, খাটো এবং পুরু, অগভীর এবং মাংসল।

বারি পানি কচু-১ ও বারি পানি কচু-২ দেশে উদ্ভাবিত পানিকচুরের দুটি উন্নত জাত। এই দুটি জাতই লতি উৎপাদনের জন্য ভালো জাত।

কচুর চারা চাষ করতে হলে সেপ্টেম্বরে কাটা শেষ হওয়ার আগেই চারা সংগ্রহ করতে হয়। তারপর সংরক্ষিত চারা আলাদা জায়গায় পুঁতে দিতে হবে। শীতের আগে জমিতে এসব চারা রোপণ করলে ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত চারা পাওয়া যায়।

কচু লতি চাষের ক্ষেত্রে প্রথমে জমি প্রস্তুত করতে হয়। এ জন্য ৩ থেকে ৪টি চাষ দিয়ে মাটি সমতল করতে হবে। কচু লতির চারা মাঠে সারিবদ্ধভাবে লাগাতে হবে। সারিতে চারা রোপণ করতে হেক্টর প্রতি প্রায় ৩৮০০০ চারা লাগবে।

গুড়িচারা কচু লতির চারা হিসেবে রোপণ করা হয়। চারা রোপণের সেরা সময় হল অক্টোবর।

কচু লতির ভালো ফলন ও বেশি ফলন পেতে হলে জমিতে সার দিতে হবে। কচু লতি চাষের জন্য বিঘা প্রতি 5৫০০ কেজি গোবর, ২৫ কেজি ইউরিয়া, ১৮ কেজি টিএসপি এবং ২৫ কেজি এমওপি সার দিতে হবে। কচু লতি চাষের সময় সব সার একই সাথে দেওয়া যায় না। প্রাথমিকভাবে ইউরিয়া ছাড়া বাকি সব সার মাটিতে স্প্রে করতে হবে।

রোপণের ২০ থেকে ২৫ দিন পর মাটিতে ইউরিয়া সার প্রয়োগ করতে হবে। কচু লতি চাষের ক্ষেত্রে সম্পূরক সেচের ব্যবস্থা থাকতে হবে। চারা রোপণের সময় জমিতে পানি জমে না থাকলে বন্যা সেচ দিয়ে জমি কর্দমাক্ত করতে হবে। যখন জমি শুকিয়ে যায়, জল হায়াসিন্থ গাছের ক্ষতি করে। তাই বৃষ্টি না হলে, জমিতে পানি প্রবাহিত না হলে সেচ দিতে হবে।

কচু লতি জমিতে লতি কচুর গোড়ায় সবসময় পানি থাকতে হবে এবং দাঁড়িয়ে থাকা পানি মাঝে মাঝে নাড়তে হবে। জমিতে সব সময় পানি থাকলে আগাছার উপদ্রব কম হয়। শামুক আগাছায় আশ্রয় নেয় এবং ক্যাকটাস পাতা খায়। তাই হাত দিয়ে এই আগাছা পরিষ্কার করতে হবে।

আগাম চাষ করলে ছোট লাল মাকড়সা বা লাল মাকড় মাইট পাতার ক্ষতি করতে পারে।যখন একটি মাকড়সা একটি তরুণ গাছের ক্ষেতে আক্রমণ করে, তখন পাতার সবুজ রঙ নষ্ট হয়ে যায় এবং এটি শুকনো দাগে পূর্ণ হয়ে যায়। মাকড়সার মাইট দূর করতে, পাতার উল্টো দিকে গুঁড়ো সাবান এবং নিঃসৃত বা ভার্টেম্যাক স্পাইডেরিসাইড পানিতে মিশিয়ে স্প্রে করুন।

কচু লতির ক্ষেতে প্রায়ই লেদা পোকা দেখা যায়। ম্যালাথিয়ন ৫৭ ইসি স্প্রে করে লেদা পোকা নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

কচুরা লতি যে কোন বয়সে গাছ থেকে তুলে খাওয়া যায়। তবে খেয়াল রাখতে হবে গাছ থেকে ছোট গাছ নিলে গাছের ফলন কমে যায়। তাই আপনাকে ক্ষেত্রের সবচেয়ে বড় এবং মোটা লগ বাছাই করতে হবে।

সংবাদ টি শেয়ার করে সহযোগীতা করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2021-2024 দৈনিক প্রথম নিউজ
প্রযুক্তি সহায়তায় রি হোস্ট বিডি